Home > বিজ্ঞান-প্রযুক্তি > পানির নিচে ডুবে যেতে পারে ফেসবুকের সদর দপ্তর
বিজ্ঞান-প্রযুক্তি

পানির নিচে ডুবে যেতে পারে ফেসবুকের সদর দপ্তর

 

বিশ্বজুড়েই জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে বেশ আলোচনা হচ্ছে। প্রতিনিয়ত সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বাড়ছে, এতে হুমকির মুখে পড়ছে মানুষের ভবিষ্যৎ।

জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে আবহাওয়া পরিবর্তন হচ্ছে দ্রুত, বাড়ছে প্রাকৃতিক দুর্যোগের ঝুঁকি। এবার এই ঝুঁকির মুখে পড়েছে যুক্তরাষ্ট্রের সিলিকন ভ্যালিতে অবস্থিত প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো। এ খবর জানিয়েছে ব্রিটিশ দৈনিক দ্য গার্ডিয়ান।

সান ফ্রান্সিসকোর সমুদ্রতীরবর্তী এলাকাটি ঝড়ের ও জলোচ্ছ্বাসের কারণে সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বেড়ে গিয়ে তলিয়ে যাওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। একদল বিজ্ঞানী এই পূর্বাভাস দিয়েছেন।

দ্য গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এতে সবচেয়ে বেশি ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে ফেসবুকের নতুন সদর দপ্তর। সান ফ্রান্সিসকোতে অবস্থিত ফেসবুকের সদর দপ্তরের আয়তন চার লাখ ৩০ হাজার স্কয়ারফুট। এর ছাদে রয়েছে নয় একরের খোলা বাগান।

ক্যালিফোর্নিয়ার বে কনজারভেশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট কমিশনের জ্যেষ্ঠ পরিকল্পনাবিদ লিন্ডে লোয়ি বলেন, ‘ফেসবুকের সদর দপ্তর বড় ধরনের ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। কারণ এটি সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে অল্প উচ্চতায় অবস্থিত’। সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা ১ দশমিক ৬ ফুট বৃদ্ধি পেলেই ফেসবুকের সদর দপ্তর পুরোপুরি তলিয়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে বলে জানিয়েছেন পরিবেশবিজ্ঞানীরা।

প্রযুক্তি জগতের আরেক প্রতিষ্ঠান গুগলের সদর দপ্তর অবস্থিত মাউন্টেন ভিউ এলাকায়। আরেক প্রতিষ্ঠান সিসকোর সদর দপ্তর অবস্থিত সান হোসেতে।

ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়া-বার্কলেতে কর্মরত নগর পরিকল্পনা বিশেষজ্ঞ ক্রিস্টিনা হিল বলেন, সমুদ্রপৃষ্ঠের সামান্য উচ্চতা বৃদ্ধিতেও সমুদ্র তীরবর্তী মহাসড়কগুলো ডুবে যেতে পারে।

আর সে কারণেই হিলের পরামর্শ, ‘গুগল ও ফেসবুককে তাদের সদর দপ্তর সরিয়ে নিতে হবে। না হলে প্রাকৃতিক দুর্যোগে তাদের বড় ধরনের ক্ষতির মুখে পড়তে হবে।’

সানফ্রান্সিসকোর সমুদ্রতীরবর্তী এলাকায় প্রায় ১০০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের বাণিজ্যিক ও আবাসিক সম্পদ রয়েছে।

-ntvbd অবলম্বনে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.